|| ফাহমিদা হক রিমতি ||

A dog desires affection more than it’s dinner. well–almost.

 কোনো এক জ্ঞানী ব্যক্তি এই মহৎ কথা বলেছিলেন বেনজির ক্ষেত্রে (আমার কুকুর) এটা কোনোভাবেই সত্যি নয় সে আমার উপর রাগ করতে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসে আচ্ছা একটা উদাহরণ দিই আমার এরিয়ায় দুটি খুব সুন্দর বিড়াল আছে, কিন্তু ওরা কখনোই আমার কাছে আসে না তাদের কখনো যদি আদর করতে যাই, বেনজি খুব রাগ করে চিৎকার শুরু করে দিবে এরপর, সে লাফ মেরে এসে বেচারা বিড়ালগুলোকে তাড়িয়ে দেয় ওরা ভয়ে পালিয়ে যায় আর সে অনেক দুঃসাহসিক কাজ করে ফেলেছে এমন মুখের চেহারা করে শরীর চুলকাতে ব্যস্ত হয় আবার আমার সাথেও রাগ কিন্তু! আমি কেন ওকে ফেলে বিড়ালকে আদর দিতে গিয়েছিলাম ফলাফল, আমাকে আদর করতে দেবে না, অন্যদিকে তাকিয়ে থাকবে, যেন আমি পরকীয়া করতে যেয়ে ধরা খেয়েছি আর সে আমার ইর্ষাকাতর স্বামী টানা পাঁচ মিনিট ধরে মাথা চুলকাতে হবে, নাহয় মুখ ফেরাবে না

 তবে সে অনেক কিছু বুঝে ফেলে আমি যখন এরিয়ায় বের হই ওকে খাওয়াতে, অনেকে হাঁ করে তাকিয়ে থাকে, মেয়েমানুষ ওরা আগে দেখেনি হয়তো তাই অনেকে কাছে এসে আমাকে উপদেশ দেন,  “আরে কুকুরের কাছে যাবেন না, কামড় দেবেহাদীসে আছে কুকুর আদর করতে নেইগুণাহ হবেআরো কতকিছু আমাকে যারা বিরক্ত করতে আসে, সে তাদের বিশাল একটা রামধমক দিয়ে বিদায় করে দেয় আমার মাঝে মাঝে সন্দেহ হয় যে আমি যাবার পর হয়ত সে মহাপুরুষেরা কিছুটা তাড়াও খেয়ে থাকেন আমার বেনজি সাহেবের কাছ থেকে

 তবে বেনজি আসলে অনেক ভীতু মানুষকে শুধু ভয় দেখানো পর্যন্তই ওর কেরামতি অন্ধকার ভয় পায়, ইলেকট্রিসিটি চলে গেলে ওর কান্নার শব্দে মরা মানুষও কবরে ওলটপালট করে হয়ত অনেক বীরপুরুষ বেচারা

 হিউম্যান নেচার হলো, উপকারীর অপকার করা বেনজি এদিক দিয়ে কুকুর হয়ে জন্মে হয়তো ভালোই করেছে প্রথম যখন ওর সাথে দেখা হয়েছিল, ওর এক পা মারাত্মকভাবে কেটে গিয়েছিল, কাউকে ধরতে দিচ্ছিল না, শুধু যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছিল, অনেক কষ্টে মাথায় হাত বুলিয়ে অনেকগুলো ড্রাই কেক খাইয়ে পায়ে ব্যান্ডেজ করেছিলাম আমার হয়তো কাজ করতে সর্বসাকুল্যে ২০ মিনিট লেগেছিলো এরপর থেকে তাকে আমি আর আমার কাছ থেকে সরাতে পারিনি, প্রতিদিন কলেজ যেতে আমাকে চকবাজার পর্যন্ত দিয়ে আসতো, রাতে ফিরে আসার সময়ে গলির মুখে অপেক্ষা করতো, গলিতে আমাকে কেউ বিরক্ত করলে তাদেরও ভালোমতো বকা দিয়ে দিতো

 এখন পর্যন্ত আমি প্রায় ৩০৪০টি কুকুরের সাথে বন্ধুত্ব করেছি, কেউ আমাকে কামড়ায় নি, আমাকে তাড়ায় নি, সবাই আমাকে আদর করেছে, ভালোবেসেছে  আমরা কেন ভয় পাই এই নিরীহ জীবগুলোকে? কুকুর কামড়াবে সবাই বলে, কিন্তু আমি নিজের চোখে কখনো দেখিনি কুকুর কামড় দিয়েছে কোনো কারণ ছাড়া কিন্তু আমি এটা দেখেছি, সেন্ট মার্টিনে একসাথে ৫০৬০টা কুকুর মেরে ফেলতে, আমার পোষা কুকুরকে গুম করে দিতে, একসাথে মাবাচ্চাসহ কুকুরের ফ্যামিলি মেরে ফেলতে

 ওরা ছোট বাচ্চার মতই, আমাদের পাষবিকতাই ওদের হিংস্রতা শেখাবে, জন্ম থেকে ওরা এসব শিখে আসেনি তাই, বেনজির পক্ষ থেকে আজকে আপনাদের একটা অনুরোধ করতে চাই আপনার আশেপাশের কুকুরেরা হিংস্র নয়, ওরা কয়েকটা বিস্কুট পেলেই অনেক খুশি থাকবে, কারো ক্ষতি করবে না প্লিজ ওদের খুন করবেন না, আমাদের মত ওদেরও বাঁচার অধিকার রয়েছে আল্লাহর সৃষ্টিকে বিনা কারণে মেরে ফেলার অধিকার আমাদের কেউ দেয়নি

 এক্ষেত্রে আরো একটা কথা জানাতে চাই, আপনাদের মধ্যে কোনো হৃদয়বান ব্যক্তি যদি অনাথ পশুদের সাহায্য করতে চান, পাঁচ টাকার বিস্কুট পেলেই ওরা অনেক খুশি হবে  আপনার সামর্থ্য যদি আরেকটু বেশি থাকে, Care For Paws নামে একটু সংগঠন মানুষের দ্বারা অত্যাচারিত প্রাণীদের তুলে এনে চিকিৎসা করে এবং আশ্রয় দেয় বর্তমানে তারা শেল্টারের ভাড়া দিতে অপারগ হওয়াতে অনেক অনাথ কুকুর, বিড়াল ঘোড়া আশ্রয়হারা হবার পথে গৃহহীন প্রাণিদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে যোগাযোগ করতে পারেন তাদের ফেসবুক পেইজে:
https://m.facebook.com/careforpawsbd/

 Let’s live and let live.

One thought on “গৃহহীন প্রাণিরা হোক হৃদয়ে আশ্রিত”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *